লটারিতে জেতা ৮ কোটি ডলারের অর্ধেক দিতে হবে সাবেক স্ত্রীকে!

লটারিতে জেতা ৮ কোটি ডলারের অর্ধেক দিতে হবে সাবেক স্ত্রীকে!

লটারিতে জেতা ৮ কোটি ডলারের অর্ধেক দিতে হবে সাবেক স্ত্রীকে!

২০১৩ সালে লটারির টিকিট কেটেছিলেন রিচার্ড জেলাস্কো নামের মার্কিন এক নাগরিক। গত সপ্তাহে সেই জ্যাকপট জিতে ৮ কোটি ডলার পেয়ে রাতারাতি কোটিপতি বনে গেছেন তিনি। লটারি জিতলেও তার জন্য অপেক্ষা করছিল এক দুঃসংবাদ। স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের মামলা চলাকালীন এই টিকিট কেটেছিলেন রিচার্ড।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে এই ঘটনা ঘটেছে। রিচার্ডের সাবেক স্ত্রীর নাম মেরি জেলাসকো। লটারিতে ৮ কোটি ডলার জিতেছিলেন রিচার্ড। যখন লটারিতে জিতেছিলেন তিনি, তখনই স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া চলছিল তাঁর।

এ নিয়ে ওই নারী সম্প্রতি আদালতের কাছে নালিশ করেছেন, লটারি কেনার সময় তিনি রিচার্ডের সংসারে ছিলেন। তাই ওই টাকার ভাগ দিতে হবে তাকে। লটারি জেতার খবর জানার পর আদালতের তিন বিচারকের এক বেঞ্চ স্ত্রী মেরি জেলাস্কোকে অর্ধেক টাকা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। গত ১৩ জুন যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের একটি আদালত এই রায় দেন।

যদিও রিচার্ডের উকিল জানিয়েছেন, তিনি আদালতের এই নির্দেশ মেনে নিতে পারছেন না। তার দাবি, রিচার্ড ভাগ্যবান বলেই এই টাকা পেয়েছেন। তাই এই টাকার দাবিদার তিনি একাই। ইতোমধ্যে তিনি কোর্টের ওই রায়ের বিপক্ষে আরেকটি মামলা দায়ের করেছেন।

আদালতের মতে, বিচ্ছেদের আবেদন করার পর তিন বাচ্চা ও স্ত্রীর ভরণপোষণের জন্য কিছু দেননি রিচার্ড। কিন্তু মামলায় লড়তে গিয়ে দু’পক্ষই সমানভাবে ভূগেছেন। তাই ভালোটাও সমান ভাগ হওয়া উচিত তাদের।

৭ বছর বিবাহিত জীবন কাটিয়েছিলেন রিচার্ড ও মেরি। ২০১১ সালে তাঁরা বিচ্ছেদের আবেদন করেছিলেন। কিন্তু তা চূড়ান্ত হতে হতে ২০১৮ সাল পর্যন্ত সময় লেগে যায়। রিচার্ড লটারির টিকিট কিনেছিলেন ২০১৩ সালে। ওই সময় থেকেই আলাদা থাকতেন রিচার্ড ও মেরি।

বার্তাসংস্থা এপি বলছে, যখন জেলাস্কো দম্পতি একসঙ্গে থাকতেন, তখনও সংসারের খরচের বেশির ভাগ বহন করতেন মেরি। তিনি রিচার্ডের থেকে তিনগুণ বেশি আয় করতেন। টিকিট কাটার পর নিজের ওয়ালেটে টিকিটটি সযত্নে রেখে দেন রিচার্ড। গরমের ছুটিতে ঘুরতে বেরিয়ে সেই ওয়ালেট হারিয়েও ফেলেন তিনি। এর এক মাস পরে মেগা মিলিয়ন ওয়েবসাইটে রিচার্ড জানতে পারেন, লটারি জিতেছেন তিনি।

পরে এ নিয়ে দীর্ঘদিন আইনি লড়াই চলে। আদালতের কাছে আবেদন জানিয়ে রিচার্ড বলেছিলেন, লটারিতে জেতা অর্থ একান্তই তাঁর হওয়া উচিত। কিন্তু শুনানিতে দেখা যায়, বিবাহিত থাকার সময় রিচার্ডের তুলনায় তিন গুণ অর্থ উপার্জন করেছিলেন মেরি এবং তা পরিবারের পেছনে খরচ হয়েছিল। আদালত রায়ে বলেছেন, যেহেতু অতীতের কঠিন সময় সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে ভাগাভাগি করেছিলেন রিচার্ড, তাই ভবিষ্যতের সুসময়ও ভাগ করে নিতে হবে।

অবশ্য আদালতের এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন রিচার্ড। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই আপিল খারিজ হলে মিশিগান সুপ্রিম কোর্টে যেতে হবে রিচার্ডকে।

hasubibi

leave a comment

Create Account



Log In Your Account